Home / আজকের লেখক / আজ মুনিয়ার জন্মদিন-আমীরুল ইসলাম

আজ মুনিয়ার জন্মদিন-আমীরুল ইসলাম

amirul-islam1-1

আজ মুনিয়ার জন্মদিন
আমীরুল ইসলাম
ছবি মোমিন উদ্দীন খালেদ
প্রকাশক: বাংলাদেশ শিশু একাডেমি
দাম ১০০ টাকা
আখতার হুসেন আর লুৎফর রহমান রিটনের মত আমীরুল ইসলাম ছোটদের সাহিত্যে খুব চেনা মানুষ। অপূর্ব চোখ জুড়ানো নকশা ও, ছবিতে সুশোভিত এই বইটিতে আজ মুনিয়ার জন্মদিনের গল্প বলা হয়েছে।মন ভাল করার মত গল্পটিতে মুনিয়া নামের ছোট্ট পাখি নিমগাছের তলায় বসে থাকে আর তাকে নিয়ে জন্মদিনের হুল্লোড়ে মেতে উঠেছে তোতা বুলবুলি ময়না, কত পাখপাখালি।দোয়েল, কোয়েল, শ্যামার হাসিহাসি মুখের সঙ্গেও দেখা হয় সেখানে।রাজহাঁসও মন ভরে গান গাইছে।
নাচে বন মোরগ।আছে পাঁতিহাস, বেলে হাঁস।ময়ূর, তিতিরও বাদ যায় নাই।রীতিমত পাখি ও নানা গাছগাছালির সমাবেশ। আমীরুল, সকলকে মনে করিয়ে দেয় জানা অজানা নানা পাখি ও গাছের খোঁজখবর নেয়ার উৎসাহ ।গল্প বলা আর প্রকৃতিকে জানা বেশ জমে উঠবে বইটি পড়তে পড়তে।
কেক কাটার সঙ্গে ফলফলারিও আছে।এভাবে আরো আমরা শিখে নিতে পারি ঝাঁকা ভরা ফলের নাম।জানা ফল আম জাম কাঠালের পাশাপাশি আমরা জানব বেতফল বৈচি করমচা, কাউয়াঠুটি –এমন সব ফলমূল গুচ্ছের রয়েছে বলেই আমাদের স্বাদ নিতে হবে নিশ্চয়।আর তার জন্য তো জানা চাই কত ফলমূল আমাদের আছে।কত স্বাদ, কত রং বাহার।
গিটার বাজায় দোয়েল।হারমোনিয়ামে কোকিল, তবলায় দাঁড়কাক।রীতিমত জমজমাট আসর। ফুলের খবরও আছে।নানা রকম কেয়ারি ফুলের।
ফুলের কথা বলতে বলতে আমাদের ফুলের রাজ্যে নিয়ে যাওয়া হয়। বেলিফুল লেবু ফুল মেঘের মত।নয়ন তারা হয় হলুদবেগুনি।জুঁই ফুল সাদা ভাতের মত। সব খবর পেয়ে গেলাম।এবার তালাশ করে নিজের চোখে দেখার জন্য বাকি কাজটা আমাদের করতে হবে। ও বাবা। কুটুস কাটুস এক দঙ্গল কাঠবেড়ালি, বিড়াল, বেজি, ইঁদুর ছানারা মিলে বেশ এক মহল তৈরি করেছে।এদের সম্পর্কেও জানা চাই।তাই তো আমাদের দেশকে ভাল বাসতে হবে। মুনিয়া পাখির জন্মদিন।সব দেখে শুনে ওর মনে হল পাখপাখালি মেরে ফেলা চলবে না।নইলে সুন্দর কিছু থাকবে না।সেজন্য দরকার কাজ করা।আমরাও মুনিয়া পাখির মত ভাববো। নদীর কাছে উড়ে যায় পাখি মুনিয়া।জন্মদিন তো নিজের সঙ্গে নতুন পরিচয়ের দিন।নিজের সঙ্গে কথা বলতে বলতে ওড়াওড়ি, দেখা আর নতুন কিছু শেখার দিন।
মুনিয়ার মত করে ফুরফুনে মনে হাওয়ায় ভাসতে নদী মেখলার দেশ, কুজন ভরা দেশ, ফুল ও ফলের বাহারি দেশ আমরাও ঘুরে বেড়াতে জোরে শ্বাস টেনে বলব, ভালবাসি দেশ।ধন্য জন্ম। কত নদী কত নাম ধান সিঁড়ি, দুধকুমার, চাঁদখালি, আগুন মুখো কথাকলি, পায়রাটুনি,লতাবেড়ি অজস্র নদনদী আমাদের প্রাণসখা। মুনিয়া পাখির মত আমরাও দেখব তো কত নদী কত সরোবর করে কলরব।

-সৈয়দ রিয়াজুর রশীদ