Home / সবিশেষ / কুশল ইশতিয়াক-এর পাঁচটি কবিতা

কুশল ইশতিয়াক-এর পাঁচটি কবিতা

10730899_4873284247780_5938
কুশল ইশতিয়াক-এর পাঁচটি কবিতা

সম্পর্ক

তুমি আমার জন্য পাঁচটি গোলাপ কিনলে

কিছুটা অবাক আমি হলাম —

পাঁচটি গোলাপ না কিনে
তুমি যদি একটি গোলাপ
অথবা একটি
পাঁপড়িও
দিতে
আমার কাছে মনে হতো
ফুলের বাগান

 ফেরারি চিঠি

থাকে মনে যতকিছু নাই হলো বলা
রুপসী তোমায় ঘিরে সব ছলাকলা
কঠিন ধারালো চোখ, এই লাগে ভালো
পাথরে খোদাই যেন- ছড়ায়েছে আলো
মুগ্ধতা ঢেকে রাখি, গাঢ় হলো মুখ
বাতাসে বাতাসে ওড়ে পাতার অসুখ
মূর্তির মতো তুমি দাঁড়ায়েছো থির
চারপাশে বেড়ে ওঠে চিনের প্রাচীর।

বাউন্ডুলে

জগত আমারে কিছুটা উন্মাদ বানায়
কিছুটা উন্মাদ বানাও তুমি
কিছুটা উন্মাদ নিজেই নিজেরে বানাই
পাগল হবার মোটামুটি দূরত্বে আছি

হাতের ভিতর রাখি জমানা, মন্তর দিয়ে
গোলকটারে করি ফুঁস —
কোথা থেকে আসি, কোথা যাই- জানি না
বৃষ্টি ছটায় ভিজে যায় মনের ভিতর মুখ

বাতাস মূলত প্রার্থনা
স্তিমিত সাদাকালো দিনে
যেভাবে দাঁড়ায় এলোমেলো একটি
গাছ; অথচ ভিতরে ভিতরে গাছও খোঁজে
বাহানা; অনুরূপ কোনো শরীরে ঝুঁকে পড়ার —

আমি
তোমার দিকে দু পা আগাই, তিন পা ফিরি
নিজের দিকে
মুখের দিকে তাকিয়ে বদলাই নিজের রঙ
অর্ধেক আলো, অর্ধেক আন্ধার মেখে
ফিরে আসি পথের ধারে, যেথা তোমারে বিদায়
দিছিলাম

কিছু উন্মাদ আমারে জগত বানায়
কিছু উন্মাদ বানাও তুমি
তোমারে খুঁজে পাই, পাই না খোদা
পাগল হবার কাছাকাছি দূরত্বে আছি।

ফটোগ্রাফ

দেখি স্টুডিওতে আসছো তুমি
ছবি তুলতে বসছো চুপচাপ
কিন্তু শাটার টিপতেই চোখ বন্ধ
তোমার, সেই বন্ধ ছবিতে দেখলাম —
চারপাশ থেকে ঝুরঝুর উড়ে যাচ্ছে
দেয়াল, ফুলদানি
গড়ায়ে যাচ্ছে গোলক, সম্ভবত বারোশো কি
তেরোশো শতাব্দীর দিকে
নাকের নোলকটা বড় হয়ে যাচ্ছে
উজ্জ্বল হয়ে পড়ছে তোমার কপাল
অচল হয়ে গেছে ভূত- ভবিষ্যতযন্ত্র
ঠোঁটটা ভেঙে গেলো
এককোনা থেকে
তুমি বুঝি পাথর হয়ে যাচ্ছো
মূর্তি হয়ে যাচ্ছো কোনো অপ্সরার, মেনেকার।

তারাভরা আদিম রাত। বক্ষ বিদীর্ণ করে
তোমার পাহাড়ের দিকে উড়ে গেলো কিছু শাদা কাক।

 বাতাসের ছেলে

সে দুই পা হাঁটে, এক বার দাঁড়ায়, আধ বার
তারপর দেয় দৌড়

বাতাসের ছেলে এত অবুঝ
যে হিমশিম খায় তার বাবা —

দূর থেকে পরিদের অট্টহাসি
বাতাসে, ছেলেটির চুল ওড়ে
অবাধ্য,
তার খালি গা, খালি পা উঠোনে
পড়ে রইলে —

সে আরো এক্কা দোক্কা, স্থির
একপেয়ে দাঁড়ানো মূর্তি, ডানা মেলে —

মানুষকে ছুঁড়ে ফেলে, মানুষের কাছাকাছি