Home / কোথায় কিনবেন বই / ঢাকার এ্যালিফেন্ট রোডে বইয়ের নতুন ঠিকানা ‘দীপনপুর’

ঢাকার এ্যালিফেন্ট রোডে বইয়ের নতুন ঠিকানা ‘দীপনপুর’

 

depon 10ঢাকার এ্যালিফেন্ট রোডে বইয়ের নতুন ঠিকানা ‘দীপনপুর’
ব্যস্ত শহরের মানুষগুলোর শত ব্যস্ততার মাঝে সুস্থ বিনোদনের সুযোগ অনেকেরই হয় না। তার মধ্যে মানুষের বই পড়ার চর্চা হারিয়ে যাচ্ছে এই ব্যস্ততার প্রতিযোগিতায়। তারপরেও মানুষ কাজের ফাঁকে ফাঁকে চায়ের আড্ডায় নিজেদের বিনোদন খুঁজে নেয়। তবে সহজ-সরল-নির্মল বিনোদন খুঁজে পাওয়া যায় বই পড়ার মাঝে। আর বই পড়ার সাথে সাথে চায়ের আড্ডা তাহলেতো কথাই নেই।
আর ব্যস্ততম মানুষ ও বই প্রেমীদের জন্যই ২৩০ (২য় তলা) এলিফেন্ট রোডে যাত্রা শুরু করেছে বই এবং ক্যাফের আড্ডায় ‘দীপনপুর’।
জাগৃতি প্রকাশনীর প্রকাশক প্রয়াত ফয়সল আরেফিন দীপনের স্মৃতির উদ্দেশ্যে গত ১২ জুলাই’১৭ তাঁর জন্মদিনে যাত্রা শুরু করেছে দীপনপুর। ৩০০০ বর্গফুটের দীপনপুরে প্রবেশের শুরুতে সিড়িতে প্রথমেই চোখে পরবে লতাগুল্মের নান্দনিক সৌন্দর্য, কাঁচের দরজা ভেদ করে ভিতরে প্রবেশ করলে ডান পাশে দেখা শিশুদের উপযোগী ‘দীপান্তর’। যেখানে শিশুরা বই পড়তে এবং খেলতে পারবে। শিশুদের সাথে তাদের অভিভাবকদের জন্যও আছে বই পড়ার ব্যবস্থা। আর বাম পাশে রয়েছে ‘ক্যাফে দীপাঞ্জলী’। সেখানে বসে ক্রেতা-পাঠক চা, কফি, জুস, হালকা খাবার পাবেন খুব সহজেই। আর একটু ভিতরে প্রবেশ করলেই বইয়ের জগৎ সাথে যেকোন অনুষ্ঠান ও সভার জন্য ‘দীপনতলা’।
দীপনপুর পাঠকদের জন্য ব্যাতিক্রম এই কারণে যে এখানে একজন পাঠক সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত সারাদিন বসে বই পড়ার সুযোগ পাবেন। এখানে বই পড়তে কোন সদস্য হওয়ার প্রয়োজন নেই। কোলাহলপূর্ণ এলাকায় দীপনপুর অবস্থিত হলেও বাহিরের বিরক্তিকর শব্দ পাঠকের বই পড়া থেকে মনযোগ নষ্ট করতে পারবে না। তবে এখানে বাহির থেকে বই এনে পড়া যাবে না। এখানে নতুন বইয়ের পাশাপাশি পুরাতন বই ও ম্যাগাজিন বই পড়ার সুযোগও পাবেন পাঠক। তবে পুরাতন বই ও ম্যাগাজিন বিক্রয়ের জন্য নয়। বই পড়াকে আরও আনন্দদায়ক করার লক্ষ্যে খুব শীঘ্রই শুদ্ধ সংগীতের ব্যবস্থাও করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন দীপনপুরের দায়িত্বপ্রাপ্ত মোজাম্মেল হোসেন শুভ। তিনি আরও জানান, ‘দীপনতলায় যেকোন অনুষ্ঠান ৪ ঘন্টার জন্য ভাড়া মাত্র ২,০০০ টাকা। তাছাড়া দীপনপুরে প্রতি শুক্রবার ও শনিবার শিশুদের চিত্রাংকনের জন্য আর্ট স্কুলের ব্যবস্থা আছে। যার বাৎসরিক ভর্তি ফি ১,০০০ টাকা এবং মাসিক ৮০০ টাকা। ক, খ ও গ বিভাগে ভর্তি চলছে।’
কর্মব্যস্ত জীবনের পাশাপাশি বন্ধু-পরিবার-পরিজন নিয়ে বইয়ের দুনিয়ায় আড্ডা আসলেই যেকোন মানুষের জন্য নির্মল আনন্দের খোড়াক হবে এই প্রত্যাশা দীপনপুর পরিবারের সকলের।